নেটখাতা

December 31, 2007

২০০৭ শেষ, ফেডোরা ৮, সিপিএম, এবং আমাদের পিতৃশ্রাদ্ধ

গত কয়েকদিন ধরে মধ্যমগ্রামে এক নৃত্য-উৎসব চলছিল। মানে, টিভিতে যেমন হয়, কোনও ফিল্মি গানের সঙ্গে নাচ, তার প্রতিযোগিতা। সংগঠক দেবীগড় সাংস্কৃতিক চক্র, মানে, সিপিএমের গনফ্রন্ট যেমন ডিওয়াইএফআই, তার আবার গনতরফ্রন্ট ওই চক্র। তার জন্যে মধ্যমগ্রামের গলির পর গলির গোটা রাস্তা জুড়ে ছড়ানো এবং জড়ানো হয়েছিল আলোকমালা, প্রায় দেড় কিলোমিটার ব্যাস জুড়ে সমস্ত খুঁটি ভূষিত হয়েছিল মাইকের চোঙায়।

আমার বাড়ি সেই ব্যাসেরও বাইরে, কতটা বাইরে তার একটা তুলনা দেওয়া যাক। এই মাইকায়িত এলাকার শেষ চোঙদার খুঁটি ছিল মধ্যমগ্রাম কালীবাড়ির গায়ে, যেখান থেকে আমার বাড়ি আসতে হলে প্রথমে দুমিনিট মত, এবং তার পর লম্ব ভাবে বেঁকে আবার এক মিনিট মত আসতে হয়, মানে, বহুভুজ বরাবর সোয়া দুই মিনিট মত হাঁটা হবে। এর পরেও, আমার বাড়ির সমস্ত জানলা এবং দরজা বন্ধ থাকার পরেও, আমার বাড়ির কমপক্ষে দুটি দরজা বা একটি জানলা (কাঁচের এবং বন্ধ) ভেদ করে সেই ‘মুংলা, মুংলা’ ইত্যাদি গানের ঝটকা আমার কম্পিউটার টেবিলের সামনে বসে থাকা আমার মাথায় আঘাত করছিল। ড্রামের বিটগুলো এসে লাগছিল যেন পেটে। আমি আমার একাধিক বন্ধুকে টেলিফোন চলাকালীন কথা বন্ধ করে ওই আওয়াজ শোনাই এবং তারা শুনতেও পায়।

এদিকে গতকাল আমার একটা কাজও ছিল, এলএফওয়াই-এর সঙ্গে যে ডিভিডিটা দিয়েছে, ফেডোরা ৮-এর, সেটা পত্রিকার সঙ্গে দেওয়া সিডি বলে আমার খুব একটা ভরসা হয়নি। এদিকে নিজের মেশিনে ফেডোরা ৭ দিব্য চলছে, কিন্তু অন্যদের জন্যে, সেটা বিট টরেন্টে নামাতে বসিয়েছি পরশু থেকে। অ্যাজেরিউসের পোর্ট খোলা নিয়ে বড্ড ঝামেলা হয়, তাই একটা নতুন ক্লায়েন্ট ডেলিউজ দিয়ে। বেশ কাজ করছে সেটা, নিজেই খুঁজে নেয় কোন পোর্টে কাজ করতে হবে। আবার কাল খুলে যাবে কলেজ, তার আগে হয়ে গেলেই ভাল। একে আমাদের এদিকে এই অক্লান্ত লোডশেডিং, এবং তার উপর আমার মেশিনও প্রায় আট বছরের বুড়ো অ্যাথলন ১৮০০, তার একটা হার্ডডিস্কও তাই। তাই নজরদারিটা রাখতেই হয়। গত কাল রাতেও তাই, শোয়ার আগে, বারোটা অব্দি মেশিনের সামনেই বসেছিলাম। দু-একটা মেলের উত্তর দিলাম, ইত্যাদি করছিলাম।

গত কদিন ধরেই নৃত্য-উৎসবে, মানে আমাদের এই পিতৃশ্রাদ্ধ চলছিল। গত পরশুর মত, বা তার আগের দিনের মত, আমরা বেশ কিছু লোক কষ্ট পাচ্ছিলাম। সকলেরই একই কথা, পুলিশকে ফোন করে কী হবে, বরং ওরা জেনে যাবে, পুলিশই গিয়ে ‘পার্টি’-কে বলে দেবে। সিপিএমের ত্রাস-নির্মাণ এতটাই পূর্ণাঙ্গ যে, এমনকি ব্যক্তিগত কথোপকথনেও মানুষ দেখেছি, ‘সিপিএম’ নামটা ব্যবহার করে না, বলে ‘পার্টি’। টেলিফোনে অব্দি। তাও শেষ অব্দি, গত কালও, অন্য দিনগুলোর মতই, বেশ দুচারবার পুলিশকে ফোন করা হল। পুলিশ ভারি ভালো ব্যবহার করল। হ্যাঁ দেখছি। তারা দেখল তারা, চাঁদ, শীতের রাত, মধ্যযাম রাত্রির শোভা, বোধহয়।

অন্য ঘরে মেয়ে রু আর তার মা ঘুমোচ্ছে, আওয়াজ আটকাতে জানলার পাল্লার সামনে মোটা বেডকভার ঝোলানো। আমি দেখছি, ডেলিউজে বিন্দু বিন্দু করে বাড়ছে ফেডোরা ৮ এর ডিভিডির ইমেজ, রেস্কিউ সিডির ইমেজ, এবং তাদের এসএইচওয়ান সাম। আওয়াজগুলো কানে শরীরে বাড়ি মেরে চলেছে। হঠাৎ একবার মনে হল, এই সব ফ্রি সফটওয়্যার, জিএলটি, লিনাক্স এইসব, বা যে কোনও কাজই, কোনও কাজ, করার মানে কী? এই সিপিএমই তো ইতিহাস। আর তো কিছু নেই, কোথাও নেই। মনে হল মেশিনে একটা লাথি মারি।

এবং এই ত্রাস তো প্রতিদিন সংঘবদ্ধতর হচ্ছে। এই অত্যাচারও নন্দীগ্রামের পর থেকে আরও স্পষ্ট। যা খুশি করব। নেতারাও, একটা মুখ্যমন্ত্রীও কথা বলছে সন্ত্রাসবাদীদের ভাষায়। ভুল ইংরিজিটা যদি বাদও দি, ইট মারলে পাটকেল খেতে হবে — এটা তো সন্ত্রাসবাদীর ভাষা। ইট মারলে সে তো অন্যায় করছে, তাকে রাষ্ট্রের শাসনে আসতে হবে, রাষ্ট্রের আইনে শাস্তি পেতে হবে — তোমার তো রাষ্ট্রের ভাষা বলার কথা, তুমি রাষ্ট্রের অংশ। তুমি সংবিধানবিরোধী কথা বলো কী করে? তারপর ক্ষমা চাওয়ার ভাঁড়ামো, বেশ চুকে গেল, পার্টিতর ওই ডিওয়াইএফআইরা, বা ডিওয়াইএফআইতর ওই চক্ররা এবার থেকে কি কাউকে মেরে একবার ক্ষমা চেয়ে নেবে, ব্যাস খেল খতম, রাষ্ট্রর দায়িত্ব সম্পূর্ণ?

দম আটকে আসছিল, গা গোলাচ্ছিল, ও ঘরে গিয়ে একবার ঘুমন্ত মেয়ের পাশে বসে ওর মুখের দিকে তাকিয়ে বসে রইলাম। তাতেও কিছু হল না। কী হবে কোনও কিছু করে? সব কিছুই তো সিপিএম।

… সেই প্রেতনৃত্য চলল ভোর পাঁচটা অব্দি …

আমি শেষ অব্দি ফেডোরা ৮ এর ডাউনলোড থামিয়ে দিইনি। মেশিনে লাথিও মারিনি, ছি মারতে পারি, আমার কতদিনের সঙ্গী, কত লেখা লিখেছি, আর ওর নামও মামদো, মহম্মদকে যা বলে ডাকতাম, সোহাগের সময়। ফেডোরা ৮ ডাউনলোড চলছে, এখন একটু পজ করে নিয়েছি ডেলিউজ, এই ব্লগটা লিখছি বলে। … রক্তক্লেদ বসা থেকে রৌদ্রে ফের উড়ে যায় মাছি / সোনালি রোদের ঢেউয়ে উড়ন্ত কীটের খেলা কত দেখিয়াছি …

4 Comments »

  1. আমি জানিনা, ওয়ার্ডপ্রেস উপরের সময়টা কেন ৩১ ডিসেম্বর দেখাচ্ছে। আমার এখন রীতিমত প্রায়দুপুর। সকাল ১০:৩৮, পয়লা জানুয়ারি, ২০০৮। এটা সায়মিন্দুর দোষ, নিশ্চয়ই জিএমটি টিএমটি কিছু একটা করে রেখেছে কনফিগারেশনে।

    Comment by dd — December 31, 2007 @ 10:39 pm

  2. কি ব্যাপার, ২০০৮ এ লেখাপত্তর কিছু হচ্ছেনা কেন? শেষ এন্ট্রি তো দেখছি জানুয়ারি মাসে৷

    Comment by Saikat — July 4, 2008 @ 11:14 am

  3. হবে রে, সব হবে। আমি কিছুতেই সবটা গুছিয়ে উঠতে পারছি না। আমার বইগুলো নিয়েও ভারি ঝামেলা চলছে, উপন্যাস আর লিনাক্স দুই-ই। পরে বলব তোকে। আর, দেখ, এই জন্যেই তোর গুরুচণ্ডালীতে আমি নিয়ম করে লেখার দায়িত্বটা নিতে পারছি না। দেখ, আমি চেষ্টা করছি, কিন্তু কিছুতেই সবগুলো দিক মেলানো যাচ্ছে না। আর বুড়োও তো হয়েছি, তাই না?

    Comment by dd — July 11, 2008 @ 12:05 am

  4. [...] এই ব্লগেই ২০০৭ সালের শেষ ব্লগে, ২০০৭ শেষ, ফেডোরা ৮, সিপিএম, এবং আমাদের প…। সেখানে ছিল সিপিএমের গণফ্রন্ট [...]

    Pingback by নেটখাতা » মাইকনির্ভর শ্রেণীসংগ্রামে বিজয়ী বাম — January 7, 2010 @ 9:15 am

RSS feed for comments on this post. TrackBack URI

Leave a comment

Powered by WordPress